ব্রেকিং নিউজ:

এ বছর ১৫ বিলিয়ন ডলারের রেকর্ড রেমিটেন্স

সবসময় প্রতিবেদকঃ ২০১৫-০৭-০২ ১৬:০৩:৩৪

সদ্য শেষ হওয়া অর্থবছরে প্রবাসীরা এক হাজার ৫৩০ কোটি (১৫ দশমিক ৩০ বিলিয়ন) ডলারের রেমিটেন্স দেশে পাঠিয়েছেন, যা অতীতের যেকোনো বছরের চেয়ে বেশি। এর আগে ২০১৩-১৪ অর্থবছরে ১৪ দশমিক ২৩ বিলিয়ন ডলারের রেমিটেন্স দেশে এসেছিল।

এই হিসেবে এবার ১০৭ কোটি ডলার বা ৭ দশমিক ৫১ শতাংশ বেশি রেমিটেন্স দেশে এসেছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের ফরেন রিজার্ভ অ্যান্ড ট্রেজারি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের মহাব্যবস্থাপক কাজী ছাইদুর রহমান আজ বৃহস্পতিবার সকালে বলেন, ২০১৪-১৫ অর্থবছরের শেষ মাস জুনে ১৪২ কোটি ডলার পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা।

একক মাসের হিসাবে এই অর্থ গত অর্থবছরের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ এবং এ যাবৎকালের তৃতীয় সর্বোচ্চ। বাংলাদেশ ব্যাংকের রেমিটেন্স-সংক্রান্ত তথ্য পর্যালোচনা করে দেখা যায়, ৩০ জুন শেষ হওয়া ২০১৪-১৫ অর্থবছরের প্রথম মাস জুলাইয়ে ১৪৯ কোটি ২৫ লাখ ডলারের রেমিটেন্স দেশে আসে। একক মাসের হিসাবে সেটাই বাংলাদেশের ইতিহাসে সর্বোচ্চ রেমিটেন্স। ছাইদুর রহমান বলেন, ব্যাংকিং চ্যানেলে রেমিটেন্স আনতে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পক্ষ থেকে নানামুখী পদক্ষেপ নেওয়ায় এর প্রবাহ বেড়েছে।

এ ছাড়া বিদেশি মুদ্রার বিনিময় হার স্থিতিশীল থাকার বিষয়টিও এতে ভূমিকা রেখেছে বলে জানান তিনি। এর আগে ২০১২-১৩ অর্থবছরে ১৪ দশমিক ৪৬ বিলিয়ন ডলার এবং ২০১১-১২ অর্থবছরে ১২ দশমিক ৮৪ বিলিয়ন ডলারের রেমিটেন্স দেশে এসেছিল। রেমিটেন্স বাড়ায় কেন্দ্রীয় ব্যাংকের বিদেশি মুদ্রার সঞ্চয়নও (রিজার্ভ) বেড়েছে। বৃহস্পতিবার দিনের শুরুতে রিজার্ভের পরিমাণ ছিল ২৫ দশমিক ০৩ বিলিয়ন ডলার। দিন শেষে এর পরিমাণ আরও বাড়বে বলে ছাইদুর রহমান জানান। গত ২৬ জুন অতীতের সব রেকর্ড ছাড়িয়ে রিজার্ভ ২৫ বিলিয়ন ডলারের কোঠা অতিক্রম করে।


এই বিভাগের আরও সংবাদ