ব্রেকিং নিউজ:

বৈশাখী উৎসবে বৈশাখী সাজ -৯ম পর্ব (চুলের সঙ্গে ফুলের সাজ)

সবসময় ডেস্কঃ ২০১৬-০৪-১২ ১১:১৩:৫২

চুল সাজের প্রধান আকর্ষণ। এর সঙ্গে বিভিন্ন ফুলের ব্যবহার আপনাকে দিতে পারে প্রাকৃতিক সাজের অনুভূতি। চুলের আকার ও ধরন অনুযায়ী চুলের সঙ্গে ফুলসাজের ভিন্নতা নিয়ে বৈশাখী সাজের আমাদের ধারাবাহিক প্রতিবেদনে আজ আপনাদের জানাবো আসছে আসছে পহেলা বৈশাখ উৎসব উৎযাপনে কেমন হতে পারে আপনার চুলের সঙ্গে ফুলের সাজ।

পরিবেশের সঙ্গে সেজে উঠছে মনও। আর মনের চারপাশজুড়ে চলছে বৈশাখ বরণের ক্ষণ গণনা। তাই নববর্ষের পুরো পরিবেশ যেভাবে সাজছে, সেই বৈশাখী সাজেও থাকা চাই প্রাকৃতিক আভা। চুলকে সাজের প্রধান আকর্ষণ ধরে, এর সঙ্গে বিভিন্ন ফুলের ব্যবহার আপনাকে দিতে পারে প্রাকৃতিক সাজের অনুভূতি। চুলের আকার ও ধরন অনুযায়ী সাজের বিভিন্ন দিক নিয়ে দেখুন রূপবিশেষজ্ঞের পরামর্শ। 

চুল মেয়েদের সাজের নান্দনিকতাকে বেশি করে ফুটিয়ে তোলে। তাই চুলের প্রতি একটু লক্ষ্য রাখলে নিজেদের সৌন্দর্য খুঁজে পেতে আর কষ্ট করতে হয় না। চুলের কারণে নিজের বাইরের লুক, রুচিবোধেরও পরিচয় মেলে। সে কারণে অনুষ্ঠান বা আয়োজন অনুসারে চুলে ভিন্নতা সহজেই আনতে পারেন। বিশেষ করে পহেলা বৈশাখের আমেজকে ব্যবহার করে চুলকে অনেকভাবেই সাজানো যেতে পারে। কারণ এ সময়ের সাজের সবচেয়ে আধুনিক অংশ জুড়ে থাকছে চুলের সাজ। 

বেণিঃ

পহেলা বৈশাখে বাঙালি ভাবটা সাজের মধ্যে অবশ্যই থাকতে হয়। তাই চুলের সাজের ক্ষেত্রে আনতে পারেন ভিন্নতা। বৈশাখী চুলের সাজে খোঁপা, বেণি সবার আগে প্রাধান্য পেয়ে থাকে। বিশেষ করে এ দিনটিতে মেয়েদের চুলের বেণির সাজে তাদের বেশি আকর্ষণীয় করে তোলে। আবার এসব ক্ষেত্রেও রয়েছে অসংখ্য সাজ। তাই বিভিন্ন দিকের সাজের মাধ্যমে বেণিকে ফুটিয়ে তোলা সম্ভব। 

বয়স অনুযায়ী বেণিগুলোতে বিভিন্ন স্টাইল আনা যেতে পারে। সে ক্ষেত্রে টিনএজ মেয়েরা বিভিন্ন ঢঙের বেণি করতে পারে। প্রাপ্তবয়স্ক মেয়েদের জন্য বেণি হতে পারে বিভিন্ন স্টাইলে। আর যারা একটু বয়স্ক, তারা চাইলে খুব সাধারণ বেণির মাধ্যমে নিজের সাজকে ফুটিয়ে তুলতে পারেন। কেউ চাইলে মাথায় তিন-চারটি বেণিও করতে পারেন। আবার একটি বেণি করে পুরো চুলকে সাজিয়ে রাখতে পারেন। এ ধরনের বেণি ফ্রাঞ্চ বেণি নামেই বেশি পরিচিত। কেউ চাইলে কপালের দু'পাশ থেকে টেনে দুটি বেণি করতে পারেন। 

চুলে সঙ্গে ফুলঃ

বিভিন্ন ঢঙের বেণিতে বৈশাখী আমেজ দিতে অবশ্যই ফুলের ব্যবহার আনা যেতে পারে। তবে সে ক্ষেত্রেও ফুলের ব্যবহার বয়সভিত্তিক হওয়া উচিত। টিনএজ মেয়েরা তাদের কপালের দু'পাশে ফুলের ব্যবহার করতে পারে। আবার চাইলে ভ্রু ছুঁয়েও ব্যবহার করতে পারেন বিভিন্ন ফুল। এ ছাড়া কানের একপাশে বা খোঁপাজুড়েই ফুলের ব্যবহার থাকতে পারে। আবার বিভিন্ন ধাঁচে চুলকে টুইস্ট করে খোঁপায়ও ফুল ব্যবহার করা যেতে পারে। তবে সাজে আরেকটু রুচিশীল হতে চাইলে ফুলের তৈরি বিভিন্ন গহনা চুলের সাজের অনুষঙ্গ হিসেবে আসতে পারে। সে ক্ষেত্রে ফুল দিয়ে টিকলি করে, গলার মালা করে বা কানের দুলের সঙ্গে জড়িয়ে ফুলকে গয়না হিসেবে ব্যবহার করা যেতে পারে। 

খোলা চুল? তাতেও ফুলঃ

বৈশাখে মেয়েদের সাজের বিশেষ অংশজুড়ে থাকবে শাড়ির ব্যবহার। শাড়ির সঙ্গে যারা চুল ছেড়ে রাখতে চান তারা চুলকে ফুলের ছোঁয়ায় সাজিয়ে রাখতে পারেন। আর এসব চুল সাজে ফুলের ব্যবহারে আনতে পারেন গোলাপ, রজনীগন্ধা, গাঁদা, বেলি ছাড়াও বিদেশি বিভিন্ন ফুলের সমাহার।

কাপড়ের রঙের সঙ্গে মিলিয়ে বা খোঁপা ও বেণির ওপর নির্ভর করেই নিজেকে সাজিয়ে নিতে পারেন এসব ফুলের স্পর্শে। যা আপনাকে নতুন দিনের পরিবেশে আরও ফুটিয়ে তুলবে।

বৈশাখের বর্ণিল সাজে নিজেকে সামিল করুন। বাঙালীর প্রাণের এ বর্ষবরণ উৎসবে প্রাণখুলে মেতে উঠুন। পরিপূর্ণ বাঙালীয়ানা আমেজে নিজেকে সাজাতে আমাদের বৈশাখী আয়োজনের সবগুলো প্রতিবেদন পড়ুন।

শেয়ার করে নিজে যেটা জানলেন বন্ধুদের কেও তা জানতে দিন।

আরও জান্তেঃ রূপচর্চা ও স্বাস্থ্যকথা BeautificatioN & HealtH


এই বিভাগের আরও সংবাদ