ব্রেকিং নিউজ:

খেলা না হওয়ায় হতাশ সাকিব

সবসময় প্রতিবেদকঃ ২০১৫-০৮-০২ ১০:৫৭:১৩

চট্টগ্রাম টেস্ট ম্যাচের শেষ দুটি দিন বৃষ্টিতে ভেসে গিয়েছিল। তাতে করে প্রথম টেস্ট ম্যাচটি অমিমাংসিতভাবে শেষ হয়েছিল। তাই স্বাগতিক বাংলাদেশ এবং সফরকারী দক্ষিণ আফ্রিকা দুটি দলের লক্ষ্য ছিল ঢাকা টেস্টে। মুশফিক বাহিনীর যেমন শেষ টেস্টে ভালো করার পরিকল্পনা ছিল। ঠিক তেমনি চট্টগ্রামে ওয়ানডে সিরিজ হারানোর জ্বালা ঢাকায় ভুলতে চেয়েছিলেন হাশিম আমলারা। তবে সিরিজের শেষ টেস্ট ম্যাচের প্রথম দিনটি ভালোভাবে কাটলেও পরপর দ্বিতীয় এবং তৃতীয় দিন ভেসে গেছে বৃষ্টিতে। দুই দলের ক্রিকেটারদের অলস সময় পার করতে হচ্ছে। সিরিজের শেষ টেস্ট ম্যাচের পরপর দুটি দিন বল মাঠে না গড়ানোয় ভীষণ হতাশ বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান।

ঢাকা টেস্ট ম্যাচের দ্বিতীয় দিন (শুক্রবার) মাঠ-মুখো হননি কোন দল। ঐদিন দুটি দলের ক্রিকেটারদের হোটেলে শুয়ে-বসে কাটাতে হয়েছে। তবে শনিবার সকাল ১১টার পর মিরপুরের আকাশে কিছুক্ষণের জন্য দেখা মেলে রোদের। তাতে করে দুটি দল এদিন দুপুর পৌণে একটার দিকে মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে আসেন।

এমনকি ঢাকা টেস্টের দুই ফিল্ড আম্পায়ার শনিবার দুপুর ১টা ৩০ মিনিটে দুই দলের অধিনায়ককে ডেকে তৃতীয় দিনের খেলার জন্য প্রস্তুত হতে বলেন। কিন্তু পরে বৃষ্টির কারণে না খেলেই দুই দলকে ফিরে যেতে হয় টিম হোটেলে। মাঠ ছাড়ার আগে সংবাদ মাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেন সাকিব আল হাসান।

দ্বিতীয় দিনের মতো তৃতীয় দিনেও খেলা মাঠে না গড়ানোয় ভীষণ হতাশ হয়ে সাকিব বলেন, ‘টেস্টের দুটি দিন খেলতে না পারাটা খুবই হতাশাজনক। তবে এ বিষয়টি কিন্তু আমাদের হাতে নেই। এখানে আমাদের কিছুই করারও নেই। আমাদের দরকার ফোকাসে থাকা, যখনই খেলা হবে তখন ভালো শুরু করা। যদিও আমাদের হাতে দুটি উইকেট আছে। আশা করি আমরা আরও কিছু রান করতে সক্ষম হব। সেই সঙ্গে পরে তাদেরকে কম রানে বেঁধে রাখতেও পারবো।’

চট্টগ্রাম থেকে শুরু হয়েছে বৃষ্টি। তাই এই বৃষ্টির মধ্যে খেলোয়াড়দের মনোযোগ ধরে রাখাটাও ভীষণ কষ্টদায়ক বলে মনে করছেন সাকিব। তাই এমন পরিস্থিতিতে সবাই বাড়তি কিছু করে মনোযোগ ধরে রাখার চেষ্টা করছে বলে জানান দেশসেরা এ বাঁহাতি অলরাউন্ডার।

এ বিষয়ে সাকিব বলেন, ‘যার ইচ্ছে হচ্ছে জিম করছে, সেই সঙ্গে রানিং করছে। বিশ্রামে আছে, সুইমিংও করছে। যেটা তাদের কাছে স্বস্তিদায়ক মনে হচ্ছে, সেটাই তারা করছে। এমনকি পরিবারকে সময়ও দিচ্ছে। এসবই আমরা করার চেষ্টা করছি । কারণএই সময়ে নিজেদের সতেজ রাখতে হবে। বিশেষ করে যখনই আমরা সুযোগ পাই, আমাদের নিশ্চিত করতে হবে দ্রুত ম্যাচে ফিরে আসতে।’


এই বিভাগের আরও সংবাদ